,


সংবাদ শিরোনাম:
«» কোভিড: দেশে দৈনিক সংক্রমণের হার ৭ মাস পর ৩ শতাংশের নিচে নামল «» হামের টিকা একবার নিলে মোটামুটি সারা জীবনই ভালো কাজে দেয়।  জল বসন্তের টিকা ১০ থেকে ২০ বছরের জন্য সুরক্ষা দেয়। আর ধনুষ্টঙ্কারের টিকার কার্যকারিতা থাকে এক দশক কিংবা তারও বেশি সময়। অথচ কোভিড-১৯ টিকা দেওয়ার পর ছয় মাস না যেতেই অনেক দেশের স্বাস্থ্য কর্মকর্তাদের বাড়তি একটা ‘বুস্টার ডোজ’ দেওয়ার কথা ভাবতে হচ্ছে। «» গাজীপুরে কারে ট্রেনের ধাক্কা, ঢাবির সাবেক শিক্ষক নিহত «» «» দেশে করোনাভাইরাসে আক্রান্তদের মধ্যে একদিনে আরও ২১ জনের মৃত্যু হয়েছে, সংক্রমণ ধরা পড়েছে আরও ৮৪৭ জনের মধ্যে। «» ভূমি অফিসের ঘুষকাব্য: যেখানে ছাড় নেই মন্ত্রীদেরও «» ভূমি অফিসের ঘুষকাব্য: যেখানে ছাড় নেই মন্ত্রীদেরও «» «» আমার প্রানপ্রিয় সিদ্ধিরগন্জবাসী ও আমার সন্তান তুল্য নেতাকর্মীবৃন্দ মনেরেখো যাদের নিজস্ব কোন গোল নেই! তারাই অন্যের মাঠে গোল দিয়ে নিজেদেরকে বড় খেলোয়াড় ভাবে।আপনাদের পাড়াতে ও এইরূপ খেলোয়াড় আছে। জীবনের এই খেলাতে হারার জন্য প্রস্তুত থেকো কিন্তু খেলা ছাড়বার কোন প্রস্তুতি নিও না। অনেকেই নিয়েছে কিন্তু আমার বিশ্বাস আপনারা নিবেন না। তবে খেলা শেষ হবার পর, (এ খেলা সে খেলা নয়, এ খেলা সেই খেলা।) বুঝতে পারবেন কে খেলোয়াড় ছিলো। তবে কথা দিচ্ছি আমি আপনাদের পাশে ছিলাম,আছি, থাকবো ইনশাআল্লাহ এই পৃথিবীর বুকে যতদিন বেঁচে থাকবো- আলহাজ্ব মোঃ ইয়াছিন মিয়া সাধারণ সম্পাদক। বাংলাদেশ আওয়ামীলীগ। সিদ্ধরগন্জ থানা শাখা। «» তরুণ প্রজন্ম সোলজার

অপহরণ করে মুক্তিপণের মামলায় এএসপিসহ ৫ জন কারাগারে

দিনাজপুর: দিনাজপুরের চিরিরবন্দর উপজেলার নান্দেরাই গ্রাম থেকে মা ও ছেলেকে অপহরণ করে মুক্তিপণ দাবির অভিযোগে করা মামলায় এক সহকারী পুলিশ সুপারসহ (এএসপি) ৫ জনকে কারাগারে পাঠানো হয়েছে।

আজ বুধবার দিনাজপুরের জুডিশিয়াল ম্যাজিস্ট্রেট আদালতের বিচারক শিশির কুমার বসু এ আদেশ দেন। এ ছাড়া আদালত অপহরণের শিকার জহুরা বেগম ও তাঁর ছেলে জাহাঙ্গীর আলমের বক্তব্য লিপিবদ্ধ করেছেন। বিচারক তাদের ছেড়ে দেওয়ার আদেশ দেন।

এই পাঁচজন হলেন: রংপুর সিআইডির এএসপি মো. সারোয়ার কবির, সহকারী উপপরিদর্শক (এএসআই) মো. হাসিনুর রহমান, কনস্টেবল আহসানুল হক, গাড়িচালক হাবিব মিয়া এবং যার অভিযোগের ভিত্তিতে মা-ছেলেকে তুলে নেওয়া হয় সেই দিনাজপুর সদর উপজেলার বাসিন্দা ফসিহ উল আলম পলাশ।

দিনাজপুর কোর্ট পুলিশের পরিদর্শক মো. মনিরুজ্জামান পাঁচজনকে কারাগারে পাঠানোর খবরের সত্যতা নিশ্চিত করেছেন। তিনি বলেন, আদালতের আদেশ পাওয়া মাত্র পাঁচজনকে দিনাজপুর জেলা কারাগারে পাঠানো হয়েছে।

উল্লেখ্য, গত সোমবার রাতে সিআইডির তিনজন নান্দেরাই গ্রামের লুৎফর রহমানকে ধরতে যান। তাঁকে না পেয়ে তাঁর স্ত্রী ও ছেলেকে বাড়ি থেকে তুলে নেন। পরে মুক্তিপণ দাবি করেন। এ ঘটনায় পরের দিন মঙ্গলবার সকালে লুৎফর রহমানের ভাই খলিলুর রহমান চিরিরবন্দর থানায় ৬ থেকে ৭ জনের নামে অভিযোগ করেন। লুৎফর রহমানের স্বজনেরা মুক্তিপণের টাকা নিয়ে দিনাজপুরের দশমাইল এলাকায় অপহরণকারীদের সঙ্গে দেখা করতে গেলে স্থানীয় জনতা তাদের আটক করে পুলিশের হাতে তুলে দেন। পরে আজ বুধবার অভিযোগটি মামলা আকারে গ্রহণ করে চিরিরবন্দর থানা।

চিরিরবন্দর থানার ওসি সুব্রত কুমার সরকার মামলায় পাঁচজনকে কারাগারে পাঠানোর খবরের সত্যতা নিশ্চিত করেছেন।

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *